• ঢাকা, বাংলাদেশ বৃহস্পতিবার, ২১ অক্টোবর ২০২১, ০৫:৩২ অপরাহ্ন
  • [কনভাটার]

সৌন্দর্য্য ও গুণ থাকলেও ছাদবাগানে জায়গা হয়নি কেশরদাম ফুলের!

সাইদুজ্জামান সাগর, নিজস্ব প্রতিবেদক / ১৬ বার পঠিত
আপডেট : সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২১

খাল বিল পুসকুনি ও ধানক্ষেতে আগাছা হিসেবে বড় হয় লতানো উদ্ভিদ কেশরদাম। সাদা ও হলুদ রঙের কেশরদাম ফুলের সৌন্দর্য চোখে পড়ার মতো। জলজ এ উদ্ভিদের রয়েছে ভেষজ গুণও। নওগাঁর রাণীনগরে এ উদ্ভিদের বিভিন্ন অংশ আমাশয়, চোখ ওঠায়, এবং ত্বকের বিভিন্ন রোগে অনেকেই ব্যবহার করে থাকে। গ্রামগঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় কেশরদাম উদ্ভিদের শাক খাওয়া হয়।

আরও পড়ুন : যার নৌন্দর্য্যে মুগ্ধ সবাই ব্যবহারে নয়!

শৌখিন মানুষরা তাদের ঘরবাড়িতে সবুজকে ধরে রাখার জন্য একান্ত নিজস্ব ভাবনা আর প্রচেষ্টায় আপন আপন বাড়ির ছাদে তৈরি করছে ছাদ বাগান। সময়ের সাথে এ বাগান এখন আর শৌখিনতায় আটকে নেই। ছাদ বাগানগুলো ফুল ফল ও সবজি দিয়ে পারিবারিক পুষ্টি চাহিদাপূরণ, পারিবারিক বিনোদন এবং অবসর কাটানোর এক মিলনমেলায় পরিণত হয়েছে বলে রাণীনগর উপজেলার উপসহকারি উদ্ভিদ সংরক্ষণ কর্মকর্তা মো: শরিফুল ইসলাম জানান।

আরও পড়ুন : পুষ্টি গুণে ভরা গাছ আলু এখন বিলুপ্তীর পথে

কেশরদাম উদ্ভিদ লতানো ঝুলন্ত হওয়ায় বাড়ির গেট ও জানালার ভিন্ন এক সৌন্দর্য্য এনে দিতে পারে বলে উপজেলা সদরের সিম্বা গ্রামের শিখন আকন্দ ও চকজান গ্রামের অরুন বোস জানান। তারা আরো বলেন, গোলাপ গাঁদা বেলি ফুলের দাপটে বাড়ির মেয়েরা ও বাচ্চারা বন-জঙ্গলের এসব ফুল গাছ ছাদে রাখতে চায় না।

উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ মো: শহিদুল ইসলাম বলেন, কেশরদাম জলজ লতা জাতীয় উদ্ভিদ। সাধারণত নদী খাল বিলের পাশে স্যাঁতস্যাঁতে স্থানে জন্মে। এর ভেষজ গুণাবলিও আছে। খাল বিল হতে এর ডাল ভেঙ্গে এনে যে কোন ধরণের ও মাপের পাত্রে বেলে দোয়াশ মাটি দিয়ে ডাল লাগিয়ে পাত্রটি পানি দিয়ে ভরিয়ে দিলেই হয়ে যাবে। বসন্তকাল হতে শরৎকালে কেশরদামের ফুল হয়।


এই ধরনের আরও সংবাদ

পুরাতন সব সংবাদ

SatSunMonTueWedThuFri
      1
16171819202122
23242526272829
3031     
    123
45678910
18192021222324
       
 123456
78910111213
28293031   
       
     12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
31      
   1234
2627282930  
       
     12
10111213141516
       
  12345
6789101112
13141516171819
2728293031  
       
  12345
6789101112
13141516171819
2728     
       
      1
16171819202122
23242526272829
3031     
   1234
       
  12345
27282930   
       
29      
       
1234567
2930     
       

বিজ্ঞাপন

error: Content is protected !!