• ঢাকা, বাংলাদেশ বৃহস্পতিবার, ১৭ জুন ২০২১, ০৪:৫৮ পূর্বাহ্ন
  • [কনভাটার]

আত্রাইয়ে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ঝুঁকি নিয়ে চলছে কার্যক্রম!

বিকাশ চন্দ্র প্রাং, নওগাঁ / ৫৩ বার পঠিত
আপডেট : রবিবার, ৩০ মে, ২০২১

সিমেন্টের টেম্পার কমে গিয়েছে। প্রতিনিয়ত দেয়ালের প্লাষ্টার ভেঙ্গে পরছে। ভেঙে পরছে ছাদের পলেস্তা। এমনই অবস্থা নওগাঁর আত্রাই উপজেলার ৩০ নং গুড়নই সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। ফলে চার কক্ষ বিশিষ্ট একতলা এই ভবনে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলছে কার্যক্রম। এতে যে কোন সময় বড় রকম দুর্ঘটনা ঘটতে পারে বলে প্রধান শিক্ষক নূর জাহান খাতুন আশংকা করছেন।

আরও পড়ুন : প্রধানমন্ত্রী অত্যন্ত সফলভাবে দেশের উন্নয়নকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন: কৃষিমন্ত্রী

জানা যায়, গত ১৮৬০ সনে আত্রাই উপজেলার গুড়নই গ্রামে গোড় নদী সংলগ্ন এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তি বর্গের সহযোগিতায় গ্রামের নামকরণে গুড়নই প্রাথমিক বিদ্যালয়টি স্থাপিত হয়। আনুমানিক ১৯৫০ সনে চার কক্ষ বিশিষ্ট একতলা ভবন নির্মিত হয়। এরপর তিন কক্ষের একতলা দুটি ভবন নির্মিত হয়। বিদ্যালয়টিতে সাতটি কক্ষ আছে। এর মধ্যে চারটি কক্ষে ছাদের পলেস্তা প্রতিনিয়ত ভেঙ্গে পরছে। করোনা মহামারির প্রভাব কমে এলে বিদ্যালয় খুলে দেয়ার ঘোষণায় ঝুঁকিপূর্ণ ভবনে পাঠদান নিয়ে উৎকন্ঠায় আছেন এক’শ ৮৯ শিক্ষার্থীর অভিভাবক ও সাত জন শিক্ষক মন্ডলী। এছাড়া গত বছর বন্যায় বিদ্যালয়ের তিনটি গাছ নদীগর্ভে বিলিন হয়ে মূল ভবনের সাথে নদী এসে লেগে গেছে। অতিদ্রুত নদীভাঙ্গন রোধের পদক্ষেপ না নিলে ভবনটি নদীগর্ভে বিলিন হয়ে যেতে পারে বলে এলাকার লোকজন মনে করেন।

আরও পড়ুন : নওগাঁয় ক্লু-লেস হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটন

ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি জহুরুল ইসলাম বলেন, অভিজ্ঞ শিক্ষক মন্ডলী দ্বারা বিদ্যালয়ের পাঠদান ও অন্যান্য কার্যক্রম পরিচালিত হয়ে আসছে। বিদ্যালয়ের পুরাতন ঝুঁকিপূর্ণ ভবনটি ভেঙ্গে নতুন ভবন নির্মাণে অনুরোধ জানান তিনি।

প্রধান শিক্ষক নূর জাহান খাতুন বলেন, জরাজীর্ন ঘরে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে বিদ্যালয়ের কার্যক্রম চালাতে হচ্ছে। কেননা মোট সাতটি ঘরের মধ্যে চারটি ঘর ভংগুর অবস্থা বিরাজ করছে। আবার বর্ষা মৌসুমে নদী ভাঙ্গনের ফলে মূল ভবনটি নদীগর্ভে বিলিনের সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। নতুন ভবন নির্মাণ এবং নদীগর্ভে বিলিনের হাত থেকে রক্ষার্থে উর্ধতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেন তিনি।

উপজেলা প্রকৌশলী পারভেজ নেওয়াজ খান বলেন, করোনা মহামারির মধ্যেও বিদ্যালয়ে সংস্কার মেরামত এবং আধুনিক ভবন নির্মাণ কার্যক্রম চলমান আছে। আগামীতে অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে এ বিদ্যালয়ে ভবন নির্মাণ কার্যক্রম করা হবে।


এই ধরনের আরও সংবাদ

পুরাতন সব সংবাদ

SatSunMonTueWedThuFri
   1234
12131415161718
19202122232425
2627282930  
       
     12
10111213141516
       
  12345
6789101112
13141516171819
2728293031  
       
  12345
6789101112
13141516171819
2728     
       
      1
16171819202122
23242526272829
3031     
   1234
       
  12345
27282930   
       
29      
       
1234567
2930     
       

বিজ্ঞাপন

error: Content is protected !!