মোদীর সঙ্গে বৈঠকের পর পিছু হঠলেন; ট্রাম্প

মোদীর সঙ্গে বৈঠকের পর পিছু হঠলেন; ট্রাম্প

:: আন্তর্জাতিক ডেস্ক ::

ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে যাবতীয় সমস্যা কেবলমাত্র দ্বিপাক্ষিক। তৃতীয় কোনও পক্ষের সাহায্য দরকার নেই ভারতের।

সোমবার জি সেভেন সম্মেলনের ফাঁকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠকের পর একথা জানালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। একই সঙ্গে তিনি বলেন, ভারত ও পাকিস্তানের একসঙ্গে অনাহার ও স্বাস্থ্যের মতো সমস্যাগুলি নিয়ে কাজ করা উচিত।

পাক প্রধানমন্ত্রী ও মার্কিন প্রেসিডেন্টকে সেই বার্তাই দিয়েছি আমি।

কাশ্মীর থেকে সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদের বিশেষাধিকার প্রত্যাহারের পর মোদী – ট্রাম্প প্রথম সাক্ষাতে কী আলোচনা হয় তার দিকে চেয়ে ছিল গোটা বিশ্ব। কাশ্মীরে ভারতের সাম্প্রতিক পদক্ষেপের পর অন্তত ৩ বার মধ্যস্থতার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

এদিনের বৈঠকের পর যদিও ট্রাম্পের গলায় ছিল উলটো সুর। বললেন, ‘কাশ্মীর সমস্যা ভারত-পাকিস্তান মুখোমুখি বসে সমাধান করে ফেলতে পারবে।’ একই কথ বলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও। তিনি বলেন, ‘ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে যাবতীয় সমস্যা সম্পূর্ণ দ্বিপাক্ষিক।’

কাশ্মীর নিয়ে মধ্যস্থতা থেকে ট্রাম্প পিছু হওয়ায় পাকিস্তান ধাক্কা খেল বলে মনে করছে আন্তর্জাতিক মহল। কাশ্মীরের বিশেষাধিকার প্রত্যাহারের পর থেকেই বিষয়টিকে আন্তর্জাতিক স্তরে নিয়ে যেতে চাইছে পাকিস্তান।

এখনও পর্যন্ত এব্যাপারে সব ক্ষেত্রেই ব্যর্থ হয়েছে তারা। গত মাসে পাক প্রধানমন্ত্রীর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সফরের সময়ই প্রথমবার কাশ্মীর নিয়ে মধ্যস্থতার ইচ্ছাপ্রকাশ করেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। বলেন, এব্যাপারে ভারতের প্রধানমন্ত্রী মোদীরও সম্মতি রয়েছে। তবে মার্কিন প্রেসিডেন্টের দাবি খারিজ করে ভারতের বিদেশমন্ত্রক। জানানো হয়, কাশ্মীর নিয়ে ভারত-পাকিস্তানের সমস্যা দ্বিপাক্ষিক। তৃতীয় কোনও পক্ষের কোনও হস্তক্ষেপ কোনও দিন চায়নি ভারত। ভারতের সেই অবস্থানই এদিন ট্রাম্পের পাশে বসে ফের একবার স্পষ্ট করে দিলেন মোদী।

সংবাদটি শেয়ার করতে এখানে ক্লিক করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© এই পোর্টালের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্ব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design BY NewsTheme
error: Content is protected !!