সর্বশেষ:
শাহজাদপুরের ৫নং গালা ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশি নাজমুল হক পাকিস্তানের দোসর-তাঁবেদাররা মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও গণহত্যার স্মৃতি মুছে ফেলতে তৎপর রয়েছে : কৃষিমন্ত্রী ‘ঝাল মুড়ি বিক্রি করে জীবন চলে মর্জিনা বেগমের’ উন্নয়নশীল দেশে উত্তোরণে মহাদেবপুর থানা পুলিশের আনন্দ উদযাপন মহাদেবপুরে ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উদযাপন আজ ঐতিহাসিক ৭ মার্চ বাংলাদেশের ঝুঁড়ি এখন খাদ্যে পরিপূর্ণ :কৃষিমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে পৃথিবীতে মর্যাদার আসনে উন্নীত করেছেন : কৃষিমন্ত্রী বারহাট্টায় আগুনে নিঃস্ব পরিবার মহাদেবপুরে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠির মাঝে উন্নত জাতের বকনা গরু বিতরণ
উত্তপ্ত টাঙ্গাইলে ১৪৪ ধারা জারি

উত্তপ্ত টাঙ্গাইলে ১৪৪ ধারা জারি

আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে টাঙ্গাইল শহরের বিভিন্ন এলাকায় তিনদিন ১৪৪ ধারা জারি করেছেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট শহিদুল্লাহ। বুধবার (২০ নভেম্বর) রাত ৮টায় ১৪৪ ধারা জারি করে শহরে মাইকিং করা হয়।

টাঙ্গাইল জেলা সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা কাজী গোলাম আহাদ জানান, টাঙ্গাইল-৩ (ঘাটাইল) আসনের সাবেক এমপি আমানুর রহমান খান রানার বড় ভাই আমিনুর রহমান খান বাপ্পীর মৃত্যুবার্ষিকী পালনের কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পুরো টাঙ্গাইল। এরপর পাল্টা কর্মসূচি ঘোষণা করে তাদের বিরোধী পক্ষ।

এই পাল্টাপাল্টি কর্মসূচির কারণে আইনশৃঙ্খলা অবনতির ঘটতে পারে বিষয়টি চিন্তা করে শহরের শহীদ স্মৃতি পৌর উদ্যান, শহীদ মিনার, নিরালার মোড়, পুরাতন বাসস্ট্যান্ড ও বিভিন্ন প্রধান প্রধান সড়কের গুরুত্বপূর্ণ স্থান এবং আশেপাশের এলাকায় বৃহস্পতিবার (২১ নভেম্বর) ভোর পাঁচটা থেকে শনিবার (২৩ নভেম্বর) সন্ধ্যা সাতটা পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে।

সূত্র জানায়, ২০০৩ সালের ২১ নভেম্বর সন্ত্রাসী হামলায় নিজ বাড়ির কাছেই খুন হন জেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম-সম্পাদক বাপ্পী। তিনি সাবেক এমপি রানার বড় ভাই এবং টাঙ্গাইল-৩ (ঘাটাইল) আসনের বর্তমান এমপি আতাউর রহমান খানের ছেলে। বাপ্পী হত্যা মামলার সাক্ষ্য গ্রহণ এখন শেষ পর্যায়ে।

মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে এবার ‘শহীদ আমিনুর রহমান খান বাপ্পী স্মৃতি সংসদের’ ব্যানারে খান পরিবার বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে বৃহস্পতিবার কবর জিয়ারত, বাপ্পী স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও শোকর্যািলি এবং শুক্রবার বিকেলে শহীদ মিনারে আলোচনা সভা।

কিন্তু আওয়ামী লীগের খান পরিবার বিরোধী নেতাদের দাবি বাপ্পীর মৃত্যুবার্ষিকীর এ কর্মসূচির মধ্য দিয়ে খান পরিবার তাদের অনুসারী সন্ত্রাসীদের আবার একত্রিত করছে। এরা টাঙ্গাইলকে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে আবার অস্থিতিশীল করে তুলতে চাইছে। তাদের এই সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের নীল নকশা রুখতেই পাল্টা কর্মসূচি হাতে নেওয়া হয়েছে।

কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে বৃহস্পতিবার সকালে ‘নির্যাতিত আওয়ামী পরিবারের’ ব্যানারে সকালে আওয়ামী লীগ নেতা ফারুক আহমেদ বিচার দাবিতে শহরের বিক্ষোভ মিছিল ও শহীদ মিনারে সমাবেশ। পরদিন শুক্রবার বিকেলে বিক্ষোভ মিছিল শেষে শহীদ মিনারে সিএনজি চালিত অটোরিকশা, অটোটেম্পো শ্রমিক ইউনিয়নের উদ্যোগে নতুন সড়ক পরিবহন আইন বাস্তবায়নে প্রধানমন্ত্রীকে কৃতজ্ঞতা জানিয়ে সমাবেশ। এছাড়াও শনিবার বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ।

দুই পক্ষই কর্মসূচি সফল করতে শহর ও আশেপাশের এলাকায় নানা তৎপরতা করছে। সাবেক এমপি আমানুর রহমান থান রানা টাঙ্গাইল শহরের কলেজ পাড়ায় তার নিজ বাসভবনে অবস্থান করে কর্মসূচি সফল করতে কাজ করছেন।

অপরদিকে, টাঙ্গাইল-২ (গোপালপুর-ভুঞাপুর) আসনের এমপি তানভীর হাসান ছোট মনির, তার ভাই শহর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি গোলাম কিবরিয়া বড় মনি, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক পৌর মেয়র জামিলুর রহমান মিরন, প্যানেল মেয়র সাইফুজ্জামান সোহেল তৎপর খান পরিবার বিরোধী মিছিল সমাবেশ সফল করতে। ফলে শহরে চাপা উত্তেজনা বিরাজ করছে। সংঘর্ষের আশঙ্কা করছেন পুলিশ প্রশাসন ও শহরবাসী।

সংবাদটি শেয়ার করতে এখানে ক্লিক করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© এই পোর্টালের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্ব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design BY NewsTheme
error: Content is protected !!