সর্বশেষ:
‘মহাদেবপুরে এবার গম চাষে বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা’ বগুড়ায় বাসের চাপায় সিএনজির ৪ যাত্রী নিহত ধনবাড়ীতে পিকআপ ভ্যান ও ট্রলির মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত -১ : আহত ৫ ‘ঘরই কাল হলো লাকির’ সাংবাদিক মুজাক্কির হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে বগুড়ায় সাংবাদিকদের মানববন্ধন বীর মুক্তিযোদ্ধা কয়েস উদ্দীনকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন চলে গেলেন বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ পৌর নির্বাচনে বগুড়ায় সৎ ও যোগ্য প্রার্থীকে নির্বাচিত করতে সুজনের পদযাত্রা ও মানববন্ধন সাপাহারে অবৈধভাবে লাইসেন্স ছাড়াই চলছে ২২ টি স’মিল মান্দায় বঙ্গবন্ধু’র ম্যুরাল নির্মান কাজের উদ্বোধন
নিরাপদ ও পুষ্টিকর খাদ্য নিশ্চিত করতে মুজিববর্ষের অঙ্গীকার-কৃষিমন্ত্রী

নিরাপদ ও পুষ্টিকর খাদ্য নিশ্চিত করতে মুজিববর্ষের অঙ্গীকার-কৃষিমন্ত্রী

:: নিউজ বুক প্রতিবেদক ::

কৃষিমন্ত্রী ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, মুজিববর্ষের অঙ্গিকার হিসেবে সবার জন্য নিরাপদ-পুষ্টিকর খাদ্য নিশ্চিত করতে সকলে একসঙ্গে কাজ করতে হবে। দেশের মানুষের খাদ্য ও পুষ্টি নিরাপত্তার প্রধান উৎস কৃষি। যা বর্তমান সরকার প্রযুক্তি ব্যবহার করে কৃষিকে আধুনিকায়ন করে যাচ্ছে। যার ফলে উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি পেয়েছে। বাংলাদেশের কৃষি এখন বাণিজ্যিক কৃষি। খোরপোষের কৃষি নয়। নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিত করা সরকারের জন্য অন্যতম চ্যালেঞ্জ। সরকারের একার প্রচেষ্টায় সকলের জন্য নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিত করা অনেক সময়ের ব্যাপার। ব্যক্তিগত সচেতনতা ও সমন্বিত উদ্যোগ গ্রহণ অপরিহার্য।

মঙ্গলবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে রাজধানীর বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিল (বিএআরসি) এর কনফারেন্স কক্ষে ‘নিরাপদ ও পুষ্টিকর খাদ্য ভ্যালু চেইন উন্নয়নে সম্মিলিত প্রয়াস’ শীর্ষক দুইদিনব্যাপী জাতীয় সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন- সচেতনতা বৃদ্ধির পাশাপশি কাজ করতে হবে নিরাপদ খাদ্য উৎপাদন ও বাজার ব্যবস্থাপনা নিয়ে। উৎপাদন থেকে শুরু করে প্রক্রিয়াজাতকরণ, সংরক্ষণ, বিপণন এবং খাবার টেবিলে পরিবেশন পর্যন্ত সর্বক্ষেত্রে নিরাপদ খাবার নিশ্চিতকরণের বিধি-বিধানগুলো পুরোপুরিভাবে অনুসরণ করা দরকার। না হলে নিরাপদ খাদ্যও অনিরাপদ হয়ে যেতে পারে। সরকার ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করতে উদ্যোগ নিয়েছে। এ জন্য স্বাস্থ্যবান ও কর্মক্ষম জনশক্তির বিকল্প নেই। আর কর্মক্ষম জনশক্তির জন্য পুষ্টিসমৃদ্ধ নিরাপদ খাবারের প্রয়োজনীয়তা অনস্বীকার্য। এছাড়া উৎপাদক থেকে বাজারজাতকরণ পর্যন্ত ভ্যালু চেইন সুষ্ঠুভাবে বাস্তবায়ন করা হলে প্রান্তিক পর্যায়ের কৃষকরা ন্যায্য মূল্য পাবে। এই চেইন বাস্তবায়ন নারী-পুরুষ সবার জন্যই বাজারে সরাসরি পণ্য বিক্রয় সহজ হবে। কৃষক তার ফসলের ন্যায্য দাম পাবে। এতে বৃদ্ধি পাবে মুনাফার পরিমাণ এবং কৃষি উৎপাদনও বাড়বে। সেই সঙ্গে নিশ্চিত হবে নিরাপদ ও পুষ্টিমানসম্পন্ন খাদ্যের জোগান।

‘সবার জন্য পুষ্টিকর ও নিরাপদ খাদ্য : মুজিববর্ষে অঙ্গীকার’ স্লোগানকে সামনে নিয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী উদযাপনের অংশ হিসাবে বিসেফ ফাউন্ডেশন ও বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিল যৌথ ভাবে দুই দিনব্যাপী এ সেমিনারের আয়োজন করেছে।

সম্মেলনটি উদ্বোধন করবেন কৃষিমন্ত্রী ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন বিএআরসি এর নির্বাহী চেয়ারম্যান ড. শেখ মোহাম্মদ বখতিয়ার। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ব্র্যাকের চেয়ারম্যান ড. হোসেন জিল্লুর রহমান, বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান (ভারপ্রাপ্ত) মাহবুব কবীর, এসিআই এগ্রো বিজনেস এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড.এফ এইচ আনসারী। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন, বিসেফ ফাউন্ডেশন এর চেয়ারম্যান ড. মোহাম্মদ জয়নুল আবেদীন। দিনের শেষে অন্ষ্ঠুানে সার সংক্ষেপ তুলে ধরেন কৃষি মন্ত্রণালয় এর সাবেক সচিব ও বিসেফ ফাউন্ডেশন এর সভাপতি আনোয়ার ফারুক।

সম্মেলনে স্বাগত বক্তব্য রাখবেন বিসেফ ফাউন্ডেশনের সভাপতি ড. মোহাম্মদ জয়নুল আবেদীন। দুই দিন ব্যাপী সম্মেলনের বিভিন্ন কারিগরী অধিবেশনে শস্য, ফল, সবজি, মৎস্য, গবাদি পশু ও হাঁস-মুরগী এর নিরাপদ, পুষ্টিকর খাদ্য ভ্যালু চেইন বিষয়ক বিস্তারিত আলোচনা হয়।

সংবাদটি শেয়ার করতে এখানে ক্লিক করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© এই পোর্টালের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্ব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design BY NewsTheme
error: Content is protected !!