মধুপুরে গুবুদিয়া-বেড়িবাইদ সড়ক সংস্কার না করে পুরো টাকা আত্মাসাতের অভিযোগ

মধুপুরে গুবুদিয়া-বেড়িবাইদ সড়ক সংস্কার না করে পুরো টাকা আত্মাসাতের অভিযোগ

:: নিজস্ব প্রতিবেদক ::

টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলার পাহাড়ী এলাকার গুবুদিয়া-বেড়িবাইদ সড়কের ৩ কি.মি. সড়ক সংস্কার না করে (এলজিএসপি-৩) প্রকল্পের পুরো টাকা উত্তোলন করে আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে। সড়কটি কাউচি পাথর দিয়ে সংস্কার কাজ না করলেও কাজ সমাপ্তির ফলকটি নির্বাক সাক্ষী হয়ে দাঁড়িয়ে আছে সড়কের এক পাশে। এ নিয়ে এলাকাবাসীর মাঝে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

মধুপুর উপজেলা প্রকৌশলী কার্যালয় ও ফলক সূত্রে জানা যায়, মধুপুর উপজেলার পাহাড়ী এলাকা বেড়িবাইদ ইউনিয়নের গুবুদিয়া -বেড়িবাইদ সড়কে ঝাটারবাইদ মাদ্রাসা হতে ভোলার দোকান পর্যন্ত ৩ কি.মি. রাস্তা কাউচি পাথর দিয়ে উন্নয়ন করার কথা। এ প্রকল্পে সরকারী বরাদ্দের টাকার চেক সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ৬ মাস আগেই উত্তোলন করে নিয়ে গেছেন।

প্রকল্প সমাপ্তির ফলকটিতে লেখা রয়েছে (এলজিএসপি-৩) ১ নম্বর ওয়ার্ড, ঝাটারবাইদ মাদ্রাসা হতে ভোলার দোকান পর্যন্ত রাস্তা কাউচি দিয়ে উন্নয়ন, এ প্রকল্পের বাস্তবায়নকাল ২০১৯-২০, বরাদ্দ ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা। অর্থ বছর ২০১৮-১৯। বাস্তবায়নে ৩ নম্বর বেড়িবাইদ ইউনিয়ন পরিষদ মধুপুর, টাঙ্গাইল।

গুবুদিয়া গ্রামের মুদি দোকানি ভোলা মিয়া ও তাহের আলী বিডি বুক টোয়েন্টিফোর ডট নেটকে জানান, এ সড়কে প্রতিনিয়ত যারা যাতায়াত করেন এবং কৃষি পন্য পরিবহণ করেন তারা সড়ক সংস্কারের এ ফলকটি দেখে সরকার ও প্রশাসনকে গালিগালাজ করে থাকেন। বৃষ্টিতে পাহাড়ী এ রাস্তাটি কাহিল হয়ে পড়লে গালির মাত্রা আরও বেড়ে যায়। মনে হয় যত দোষ সরকার ও ওই নির্বাক ফলকের। ফলকটি গুবুদিয়া মোড়ে ভোলা মিয়ার দোকানের অদূরেই। তাই তিনি ফলক নিয়ে গালির কেচ্ছা প্রতিনিয়তই শুনে থাকেন।

ঝাটারবাইদ গ্রামের রাজমিস্ত্রি সাইদুর রহমান বিডি বুক টোয়েন্টিফোর ডট নেটকে জানান, এ সড়কে প্রতিনিয়িতই তার যাতায়াত। সামান্য বৃষ্টিতেই লাল মাটির রাস্তাটি কর্দমাক্ত হয়ে যায়। পায়ের জুতা হাতে নিয়ে চলতে হয়। এ বছর তো দূরের কথা ৫/৬ বছরের মধ্যে কাউকে কাউচি পাথর ফেলতে দেখিনি। বেড়িবাইদ গ্রামের ফল চাষি আক্তার হোসেন ও কৃষক আব্বাস আলী জানান, এ এলাকার ৯৯ ভাগ চাষি ফল ও সবজি আবেদর সাথে জড়িত। তাদের উৎপাদিত কৃষি পন্য বাজারজাতকরণে এ পথেই জলছত্র পাইকারী বাজারে যেতে হয়। কিন্তু রাস্তাটি দীর্ঘ দিনেও সংস্কার না হওয়ায় এ এলাকার কৃষকরা উৎপাদিন কৃষি পন্য নিয়ে বিপাকে রযেছেন।

ভ্যান চালক মনির হোসেন জানান, সংস্কার না করে রাস্তার ধারে চকচকে ফলক দেখে সবাই অবাক হন। সামান্য বৃষ্টি হলেই রিক্স-ভ্যান কাঁদায় আটকে যায়। তিন-চার জনে ঠেলে পার করতে হয়। ক্ষুদ্ধ পথচারীরা এজন্য ভোগাস ফলক দেখে গালিগালাজ করেন।

গুবুদিয়া গ্রামের কলেজ শিক্ষক মনিরুজ্জামান আকাশ বিডি বুক টোয়েন্টিফোর ডট নেটকে জানান, ৫ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা এ পথে যাওয়া-আসা করে থাকে। ৫/৬ বছরেও এ রাস্তাটি কাউচি দিয়ে সংস্কার হয়নি। কিন্তু রাতের আঁধারে রাস্তা সংস্কারের ফলক স্থাপন করা হয়েছে। সরকারের উন্নয়ন চোরাবালিতে কিভাবে হারিয়ে যায় ফলকটি তার প্রমাণ।

বেড়িবাইদ ইউপি চেয়ারম্যান জুলহাস উদ্দিন বিডি বুক টোয়েন্টিফোর ডট নেটকে জানান, এ প্রকল্পের সভাপতি ১ নং ওয়ার্ডের মেম্বার মো. বাহাদুর। তিনি এ বিষয়ে বলতে পারবেন। ফলকও তিনি বসিয়েছেন। পাথর ফেলা না হয়ে থাকলে দু-এক দিনের মধ্যে ফেলা হবে।

১ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ও প্রকল্প সভাপতি মো. বাহাদুর বিডি বুক টোয়েন্টিফোর ডট নেটকে বলেন, তিনি প্রকল্পের সভাপতি কিনা তা তিনি জানেন না।

মধুপুর উপজেলা প্রকৌশলী বিদ্যুৎ কুমার দাশ বিডি বুক টোয়েন্টিফোর ডট নেটকে জানান, এ প্রকল্পের বরাদ্দ দেন স্থানীয় সরকার বিভাগ। তারাই এটি তত্তা¡বধান করেন।

মধুপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরিফা জহুরা বিডি বুক টোয়েন্টিফোর ডট নেটকে জানান, তিনি খোঁজ-খবর নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

সংবাদটি শেয়ার করতে এখানে ক্লিক করুন

One response to “মধুপুরে গুবুদিয়া-বেড়িবাইদ সড়ক সংস্কার না করে পুরো টাকা আত্মাসাতের অভিযোগ”

  1. […] সকল পরিক্ষার্থী ফেল, সড়ক অবরোধ মধুপুরে গুবুদিয়া-বেড়িবাইদ সড়ক সংস্কা… নালিতাবাড়ীতে অটোভাড়া নিয়ে সংঘর্ষে […]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© এই পোর্টালের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্ব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design BY NewsTheme
error: Content is protected !!