করোনার থাবা অমিতাভকে !

করোনার থাবা অমিতাভকে !

:: বিনোদন ডেস্ক ::

করোনা থাবা বসিয়েছে তাঁর শরীরেও। শনিবার রাতে নিজেই টুইট করে সে কথা জানিয়েছিলেন অমিতাভ বচ্চন। সেই থেকে মেগাস্টারকে নিয়ে উদ্বিগ্ন ছিল গোটা দেশ। তবে রবিবার সকাল হতে জানা গেল, মৃদু উপসর্গ থাকলেও অমিতাভের অবস্থা স্থিতিশীল। হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে চিকিৎসকদের পর্যবেক্ষণে রয়েছেন তিনি।

গতকাল রাতেই মুম্বইয়ের নানাবতী সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ভর্তি হন অমিতাভ বচ্চন। এ দিন সকালে হাসপাতালের তরফে একটি বিবৃতি প্রকাশ করে বলা হয়, ‘‘অমিতাভ বচ্চনেরের অবস্থা স্থিতিশীল। মৃদু উপসর্গ রয়েছে তাঁর। হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে রাখা হয়েছে তাঁকে। শরীর কেমন থাকে, টুইট করে নিজেই তা জানাবেন বলে নিশ্চিত করেছেন তিনি।’’ খবর: আনন্দবাজার পত্রিকার।

অমিতাভের পাশাপাশি তাঁর ছেলে অভিষেকও করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এই মুহূর্তে তিনিও নানাবতী হাসপাতালেই ভর্তি রয়েছেন। মহারাষ্ট্রের স্বাস্থ্যমন্ত্রী রাজেশ টোপে জানিয়েছেন, মৃদু উপসর্গ দেখা দেওয়ায় গতকাল বচ্চন পরিবারের সদস্যরা র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন পরীক্ষা করান। তাতেই অমিতাভ এবং অভিষেক কোভিড পজিটিভ বলে জানা যায়।

রাজেশ টোপে আরও জানান, শনিবার জয়া বচ্চন, ঐশ্বর্যা এবং আরাধ্যারও র‌্যাপিড টেস্ট হয়। তাতে তাঁদের শরীরে কোভিড-১৯ ভাইরাসের উপস্থিতি মেলেনি। তবে তাঁদের লালারসের নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। সোমবার সকালে সেই রিপোর্ট হাতে পেলেই এ ব্যাপারে নিশ্চিত হওয়া যাবে। কোমর্বিডিটি থাকায় অমিতাভকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয় বলেও জানা গিয়েছে।

নোভেল করোনার প্রকোপ সামাল দিতে গত ২৪ মার্চ দেশ জুড়ে লকডাউন ঘোষণা করে কেন্দ্রীয় সরকার। তার জেরে বলিউডের যাবতীয় শুটিং বন্ধ। সম্প্রতি আনলক পর্ব শুরু হলে ধীরে ধীরে ছন্দে ফিরতে শুরু করে মায়ানগরী। কাজে ফেরেন অভিষেকও। কয়েক দিন আগেই নিজের ওয়েবসিরিজ ‘ব্রিদ: ইনটু দ্য শ্যাডোজ’-এর জন্য একটি ডাবিং স্টুডিয়োয় দেখা যায় তাঁকে।

অভিষেক কোভিড পজিটিভ জানার পর ওই স্টুডিয়োটি আপাতত বন্ধ রাখা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। গত ১০ দিনে যে বা যাঁরা তাঁর সংস্পর্শে এসেছিলেন, তাঁদের ডাক্তারি পরীক্ষা করাতে অনুরোধ জানিয়েছেন অমিতাভ নিজে।

সংবাদটি শেয়ার করতে এখানে ক্লিক করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© এই পোর্টালের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্ব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design BY NewsTheme
error: Content is protected !!