সর্বশেষ:
‘মহাদেবপুরে এবার গম চাষে বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা’ বগুড়ায় বাসের চাপায় সিএনজির ৪ যাত্রী নিহত ধনবাড়ীতে পিকআপ ভ্যান ও ট্রলির মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত -১ : আহত ৫ ‘ঘরই কাল হলো লাকির’ সাংবাদিক মুজাক্কির হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে বগুড়ায় সাংবাদিকদের মানববন্ধন বীর মুক্তিযোদ্ধা কয়েস উদ্দীনকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন চলে গেলেন বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ পৌর নির্বাচনে বগুড়ায় সৎ ও যোগ্য প্রার্থীকে নির্বাচিত করতে সুজনের পদযাত্রা ও মানববন্ধন সাপাহারে অবৈধভাবে লাইসেন্স ছাড়াই চলছে ২২ টি স’মিল মান্দায় বঙ্গবন্ধু’র ম্যুরাল নির্মান কাজের উদ্বোধন
টাঙ্গাইলে বৃজ মাদকাসক্তি চিকিৎসা কেন্দ্রে যুবকের আত্মহত্যা না হত্যা!

টাঙ্গাইলে বৃজ মাদকাসক্তি চিকিৎসা কেন্দ্রে যুবকের আত্মহত্যা না হত্যা!

:: টাঙ্গাইল ::

টাঙ্গাইলের বৃজ মাদকাসক্তি চিকিৎসাকেন্দ্রে মো. তোফাজ্জল হোসেন (৩২) নামে এক যুবক আত্মহত্যা করেছেন।

তিনি গোপালপুর উপজেলার মৃত আব্দুল জব্বারের ছেলে।

মৃতের পরিবারের দাবি, তোফাজ্জলকে শারীরিক ভাবে নির্যাতন করে হত্যা করা হয়েছে।

বৃজ মাদকাসক্তি চিকিৎসা কেন্দ্রের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের দাবি, মানসিক সমস্যার কারণে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন তোফাজ্জল। বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে সদর উপজেলার বেলটিয়াবাড়ি বৃজ মাদকাসক্তি চিকিৎসাকেন্দ্র থেকে ওই যুবকের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত তোফাজ্জলের ছোট ভাই মো. উজ্জ্বল বলেন, ৭ সেপ্টেম্বর আমার ভাইকে বৃজ মাদকাসক্তি চিকিৎসা কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়। তোফাজ্জলকে কেন্দ্রের দায়িত্বরত ব্যক্তিরা শারীরিকভাবে নির্যাতন করেন। তাকে শারীরিকভাবে নির্যাতন না করার জন্য একাধিকবার অনুরোধ করা হয়েছে।

বুধবার সকালে মোবাইলে খবর আসে তোফাজ্জলের অবস্থা ভালো নয়। এসে দেখি তার মৃত্যু হয়েছে।

এ সময় তিনি দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন।

বৃজ মাদকাসক্তি চিকিৎসা কেন্দ্রের ব্যবস্থাপনা পরিচালক খন্দকার মজিবুর রহমান তপনের কাছে ঘটনা সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি ডিসি অফিসে যাচ্ছি পরে আপনাদের পরে জানাবো।

টাঙ্গাইল সদর ফাঁড়ির ইনচার্জ মোশারফ হোসেন বলেন, সংবাদ পাওয়ার পর আমরা দ্রুত ঘটনাস্থলে যাই।

এরপর মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য টাঙ্গাইল ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ময়নাতদন্তের পরই জানা যাবে কীভাবে ওই যুবকের মৃত্যু হয়েছে।

ঘটনাস্থল পরিদর্শনের সময় টাঙ্গাইল মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক (টাঙ্গাইল অতিঃ দায়িত্ব) শামীম হোসেন জানান, আমি বর্তমানে গাজীপুরে কর্মরত আছি।

টাঙ্গাইল আমার অতিরিক্ত দায়িত্ব। ঘটনাটি শোনার পর পরই উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের অবহিত করি। পরে আমি গাজীপুর থেকে টাঙ্গাইল এসে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি।

এই বিষয়ে একটি প্রতিবেদন তৈরি করে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করতে এখানে ক্লিক করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© এই পোর্টালের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্ব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design BY NewsTheme
error: Content is protected !!