সর্বশেষ:
‘ঘরই কাল হলো লাকির’ সাংবাদিক মুজাক্কির হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে বগুড়ায় সাংবাদিকদের মানববন্ধন বীর মুক্তিযোদ্ধা কয়েস উদ্দীনকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন চলে গেলেন বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ পৌর নির্বাচনে বগুড়ায় সৎ ও যোগ্য প্রার্থীকে নির্বাচিত করতে সুজনের পদযাত্রা ও মানববন্ধন সাপাহারে অবৈধভাবে লাইসেন্স ছাড়াই চলছে ২২ টি স’মিল মান্দায় বঙ্গবন্ধু’র ম্যুরাল নির্মান কাজের উদ্বোধন সাপাহারে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন অমর একুশে স্মরণে টাঙ্গাইল মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদের শ্রদ্ধাঞ্জলি পাইস্কা উচ্চ বিদ্যালয় ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষার দাবীতে আলোচনা সভা
সামান্য বৃষ্টি হলেই সাগরদিঘি রাস্তায় হাঁটু পানি, জনদুর্ভোগ চরমে!

সামান্য বৃষ্টি হলেই সাগরদিঘি রাস্তায় হাঁটু পানি, জনদুর্ভোগ চরমে!

রেজাউল করিম খান রাজু- :: ঘাটাইল থেকে ::

টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার সাগরদিঘি-ঘাটাইল রাস্তাসহ সাগরদিঘি বাজারের চারদিকে দীর্ঘদিন যাবত গর্ত থাকায় জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে। এতে করে যোগাযোগসহ দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন এলাকাবাসী ও পথচারীরা। বিশেষ করে বিপাকে পড়েছেন কৃষকরা।

উপজেলার সাগরদিঘি এলাকাটি পূর্ব পাহাড় হিসেবে পরিচিত। যেখানে শতকরা ৮০ ভাগ কৃষক লেবু, কলা, বেগুন, পেঁপে, মুলা, লাউ, কাঁচামরিচসহ বিভিন্ন প্রকার সবজির চাষ করেন। এসব ফল ও সবজি প্রতিদিন বিক্রি করতে ওই রাস্তা দিয়ে স্থানীয় কৃষকদের বাজারে যেতে হয়। কৃষিপণ্য বাজরের বিক্রির একমাত্র মাধ্যমই হলো ওই রাস্তাটি।

সরেজমিনে দেখা যায়, সাগরদিঘি চার রাস্তার মোড় থেকে ২’শত গজ পশ্চিমে ঘাটাইলে যাওয়ার এ রাস্তা বিভিন্নস্থানে গর্ত হয়ে রাস্তার চারদিকে হাঁটু পর্যন্ত পানি জমে থাকে। যে কোনো সময় ঘটতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনাও। কোনো যানবাহন বাজারে ঢুকতে পারে না। এতে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে কৃষক ও ব্যবসায়ীরা। একই চিত্র মিলে, সাগরদিঘি থেকে সখীপুর ও মধুপুর উপজেলায় যাওয়ার রাস্তাটিও।

স্থানীয় সবজি ব্যবসায়ীরা বলেন, ‌‘টাঙ্গাইল-ঢাকাসহ বাংলাদেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে ব্যবসায়ীরা আমাদের এখানে সবজি কিনতে আসতো। এখন রাস্তা ভাঙা থাকার কারণে কোনো গাড়ি বাজারে ঢুকতে পারে না। তাদের উৎপাদিত নানা ধরনের ফল ও কৃষিপণ্য সঠিক দামে বিক্রি করতে পারে না। প্রতি মৌসুমেই সবাই ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

স্থানীয় কৃষক আমের আলী বলেন, আমার ২ বিঘা জায়গা নানা ধরনের সবজি বাগান করেছি । ফলন অনেক ভালো হইছে কিন্তু সঠিক দামে বিক্রি করতে পারমু বলে মনে হয় না। এ নিয়ে চিন্তায় আছি। যদি রাস্তাটি মেরামতের ব্যবস্থা না করা হয় তাহলে দিনদিন কৃষিপণ্য উৎপাদন সবাই কমিয়ে দিবে। গর্তের কারণে কোন পরিবহন বাজারে ঢুকতে পারে না। অনেক সময় পরিবহনগুলো উল্টেও যায়। ঘটে নানা ধরনের দুর্ঘটনা।

পিকআপ চালক আমির হামজা ও কবির মিয়া বলেন, ‘বাজারে গাড়ি ঢুকানো কোনোভাবেই সম্ভব না। চারদিকে রাস্তায় গর্ত ও হাঁটু পানি। এতে আমরাসহ এলাকার কৃষকরা নানামুখী ক্ষতির সন্মুখীন হচ্ছেন। এছাড়া এখানে যেকোনো সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। এ রাস্তা খুব তাড়াতাড়ি মেরামত করার জন্য দাবি জানাচ্ছি।

সংবাদটি শেয়ার করতে এখানে ক্লিক করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© এই পোর্টালের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্ব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design BY NewsTheme
error: Content is protected !!