সর্বশেষ:
বগুড়ায় বাসের চাপায় সিএনজির ৪ যাত্রী নিহত ধনবাড়ীতে পিকআপ ভ্যান ও ট্রলির মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত -১ : আহত ৫ ‘ঘরই কাল হলো লাকির’ সাংবাদিক মুজাক্কির হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে বগুড়ায় সাংবাদিকদের মানববন্ধন বীর মুক্তিযোদ্ধা কয়েস উদ্দীনকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন চলে গেলেন বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ পৌর নির্বাচনে বগুড়ায় সৎ ও যোগ্য প্রার্থীকে নির্বাচিত করতে সুজনের পদযাত্রা ও মানববন্ধন সাপাহারে অবৈধভাবে লাইসেন্স ছাড়াই চলছে ২২ টি স’মিল মান্দায় বঙ্গবন্ধু’র ম্যুরাল নির্মান কাজের উদ্বোধন সাপাহারে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন
৩০ বছর পর নিজের ঘরে পাল-দম্পতি

৩০ বছর পর নিজের ঘরে পাল-দম্পতি

৩০ বছর পর নিজের ঘরে পাল-দম্পতি

আজিজুল হক ফারুক :: বারহাট্টা ::

সত্তোর বছরের বৃদ্ধ দুলাল চন্দ্র পাল। তার স্ত্রী লক্ষ্মী রানীর বয়সও ষাটের বেশী। জায়গা-জমি নাই। নেত্রকোণার বারহাট্টা উপজেলার চন্দ্রপুর-পালপাড়ার এক ব্যক্তির জায়গায় ছাপড়া বেঁধে প্রায় ৩০ বছর ধরে বসবাস করে আসছিলেন তারা। আজ তারা নিজের জায়গায় নিজের ঘরের মালিক হলেন।

আজ শনিবার পাল দম্পতির হাতে জমির মালিকানা দলিল হস্তান্তরের মাধ্যমে প্রকল্পের শুভ সূচনা করেছেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুহাম্মদ মাইনুল হক ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার গোলাম মোরশেদ।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোস্তাফিজুর রহমান, সমাজসেবা কর্মকর্তা মাহাবুবুর রহমান, ভারপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা মিজানুর রহমান, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ লতিফুর রহমান, সিংধা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহ মাহবুব মোর্শেদ কাঞ্চন, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা শাহ মোহাম্মদ আব্দুল কাদের, বারহাট্টা প্রেসক্লাবের সেক্রেটারী ফেরদৌস আহমাদ বাবুলসহ উপজেলার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও সুবিধাভোগীরা উপস্থিত ছিলেন।

জানা যায়, এককালে সবই ছিল এই পাল দম্পতির। বিভিন্ন কারণে সর্বস্ব খুইয়ে দীর্ঘ ৩০বছর পরের আশ্রিত ছিলেন তারা। দুলাল চন্দ্র পাল বলেন, “আমরা দুই বুড়া-বুড়ি। ছেলে-মেয়ে নাই। জমি-জমা নাই। তাহনের লাইগ্যা নিজেরার ঘর নাই। শেখ হাসিনা জায়গা দিছে, ঘর দিছে। মায়ের উপকার করছে।

উপজেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, দুলাল চন্দ্র পালের মতো বিনা মূল্যে জায়গাসহ ঘর পাচ্ছেন উপজেলার সাত ইউনিয়নের ৪৫টি ছিন্নমূল পরিবার। এ সব পরিবারের লোকজন দীর্ঘকাল ধরে অন্যের বাড়িতে খুপরি-ঘর বেঁধে কোনরকম বসবাস করে আসছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার গোলাম মোরশেদ বলেন, মুজিব জন্ম শতবর্ষ উপলক্ষে সরকার সারা দেশে “ক” শ্রেণীর ভ‚মি ও গৃহহীন পরিবার পুনর্বাসনের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। এরই আওতায় বারহাট্টায় বাছাইকৃত ৪৫টি পরিবারকে খাস জমি বন্দোবস্ত এবং এই জমিতে আধা-পাকা ঘর নির্মাণ করে দেয়া হচ্ছে। আজ (শনিবার) তাদের কাছে জমির মালিকানা দলিল হস্তান্তর করা হয়েছে।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ লতিফুর রহমান বলেন, “প্রতিটি ঘরের আয়তন ৪৯৫ বর্গফুট। দুইটি শয়ন কক্ষ, একটি রান্নার কক্ষ ও সংযুক্ত বাথরুম আছে। নির্মাণব্যয় ধরা হয়েছে ১ লক্ষ ৭১ হাজার টাকা। সরকারী নির্দেশনা অনুযায়ী নির্মান কাজ করা হচ্ছে।

সংবাদটি শেয়ার করতে এখানে ক্লিক করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© এই পোর্টালের কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্ব অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design BY NewsTheme
error: Content is protected !!